***** Online Freelancing*****

 



কোর্স শুরু : ২৩/০২/২০১৭ ইং
ভর্তি চলবে :২২/০২/২০১৭ ইং পর্যন্ত

বর্তমানে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়ার অন্যতম উপায় হচ্ছে ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং করা । বাংলাদেশ থেকেই এখন প্রচুর তরুণ-তরুণী ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে নিজেদের ক্যারিয়ার নিশ্চিত করেছেন। ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং থেকে প্রতিমাসে হাজারো ডলার আয় করছেন এমন সফল ফ্রিল্যান্সারের সংখ্যাও এখন অনেক। বর্তমানে যে কাজগুলোর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসগুলোতে, তাদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন হচ্ছে এক বা একাধিক স্তরের ছোট থেকে বড় সব ধরনের ইমেজ তৈরি বা এডিট করা । আজকাল শিশু থেকে বৃদ্ধ ছবি তোলেনি এমন মানুষের সংখ্যা প্রায় নেই। বিভিন্ন ধরনের প্রিন্টিং, অনলাইন-অফলাইন নিউজ মিডিয়া, টিভি চ্যানেল, বিভিন্ন ডিজিটাল আর্ট, গেম্স, সফ্টওয়ার ইন্টারফেস্ ইমেজ ইত্যাদি সব কিছুতেই ইমেজের কাজ বিদ্যমান । বর্তমানে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান যেমন বাড়ছে তেমনি বাড়ছে তাদের প্রোডাক্ট । ই-কমার্স সাইটে এসব প্রোডাক্টের ইমেজ লাগে । ইমেজ ছাড়া বিশ্বের বিপুল পরিমান ওয়েবসাইট অসম্ভব । সুতরাং বুঝতেই পারতেছেন, সামনে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা আরও কত বাড়বে ।
 মজার ব্যাপার হল, গ্রাফিক্স ডিজাইনয়ের মত এই শক্তিশালী টুলসের ব্যবহার ভালোভাবে জানতে পারলে অনেকটাই
সহজ । যেকেউ সহজেই গ্রাফিক্স ডিজাইনয়ের ট্রেইনিং নিয়ে কাজ শুরু করতে পারেন, এর জন্য আলাদা কোন অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই।

 গ্রাফিক্স ডিজাইন এ ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারঃ

একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে দু’ভাবে কাজ করতে পারে।
 ১. ঘন্টা হিসেবে
২. নির্ধারিত মূল্যে।

আর এখানে পার্ট টাইম এবং ফুল টাইম কাজ করারও সুযোগ আছে। দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারলে কাজের অভাব নেই। অনলাইন মার্কেটপ্লেসে সাধারণত গ্রাফিক্স ডিজাইনয়ের যে কাজগুলো পাওয়া যায় তার মধ্যে টেমপ্লেট ডিজাইনিং, লোগো ডিজাইন, ব্যানার ডিজাইন, লোকেশন ম্যাপ ডিজাইন, প্রোডাক্টের ইমেজ এডিটিং, ইমেজ-এ অবস্থিত লেখা পরিবর্তন বা মুছে ফেলা, ইমেজ এর রিফ্লেকশন ইমেজ তৈরি উল্লেখযোগ্য।

একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের আয়:

গ্রাফিক্স ডিজাইন এর পরিধি ব্যাপক। আপনি ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে প্রচুর গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ পাবেন। বর্তমানে ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস আপওয়ার্কের যত কাজ রয়েছে তার মধ্যে গ্রাফিক ডিজাইনের কাজের অনুপাতও বিশাল । প্রজেক্ট ছাড়াও নির্ধারিত মূল্যে কাষ্টম টেমপ্লেট ডিজাইনিং কাজ রয়েছে। তাই এটা একটা বিশাল সুযোগ নতুন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য। তাছাড়া অ্যাফিলিয়েশন থেকে শুরু করে নিজের প্রতিষ্ঠানের জন্যও করতে পারেন গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ। কিংবা অন্য প্রতিষ্ঠানের সার্ভিস প্রদান করেও ভালো আয় করছে অনেক গ্রাফিক্স ডিজাইনার । এই ক্ষেত্রটিতে সৃজনশীল তরুণ-তরুণীরা খুব দ্রুত ভালো কিছু করতে পারে।

 প্রশিক্ষণ যেখানে নিবেনঃ

গ্রাফিক্স ডিজাইন বিষয়ে উত্তরা ইনফোটেক (UTTARA INFO TECH) আয়োজন করেছে দুই মাসের প্রশিক্ষণ কোর্স (সপ্তাহে তিন দিন ক্লাস )। বাস্তবভিত্তিক সময় উপযোগী এ প্রশিক্ষণ করেই আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনে আপনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

আমাদের সুবিধাসমূহঃ
> সক্রিয় দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার ফ্রিল্যান্সার দ্বারা ক্লাস করানো হয় ।
 > আর লেকচারের পাশাপাশি বড় প্রজেক্টরের মাধ্যমে লাইভ কাজ করে দেখানো হয় প্রতিটি ক্লাসে।
 > আর ক্লাশ শেষে প্রতিদিন বিভিন্ন ভিডিও টিউটোরিয়াল সরবরাহ করা হয় যেখান থেকে একজন শিক্ষার্থী তার বিষয়গুলোকে আরও ভালোভাবে আয়ত্ব করতে পারেন।
> ক্লাশ শেষে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট করে দেওয়া হবে এবং প্রোফাইল কমপ্লিট করে দেয়া হয়।

 ভর্তি এবং প্রশিক্ষণ ফিঃ

 > ক্লাশ হবে সপ্তাহে তিন দিন দুই মাস ।
> প্রতিটি ক্লাসের সময়ঃ ১.৫ ঘণ্টা করে।
> প্রশিক্ষণ ফিঃ ৮,৫০০ টাকা। (কোর্স ফি ২ টা ইন্সটলমেন্টে দেয়া যাবে)
  *** তবে প্রতি ব্যাচে আসন সংখ্যা সীমিত (১০টি)। আপনার আসনটি আজই নিবন্ধন করে রাখুন।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন :

 উত্তরা ইনফোটেক বি এনএস সেন্টার,
৫ তলা, কক্ষ ৬১০/এ, সেক্টর ৭,
উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ ।
 ফোনঃ ০১৯৭০ ৯০০ ৯৩৩

ওয়েবঃ www.uttarainfotech.com
ওয়েবঃ http://uit.com.bd

Leave a Reply

www.uit.com.bd. Powered by Blogger.